একটি অজানা জানা: ইফতু আহমেদ

একটি অজানা জানা

লিখেছেন ইফতু আহমেদ

যদিও বঙ্গবন্ধু আমার মরহুম পিতা ইলিয়াস উদ্দিন আহমেদ থেকে বয়সে ৬ বছরের বড় ছিলেন, কিন্তু উনারা ছিলেন সমসাময়িক এবং একই কলিকাতা ইসলামিয়া কলেজে পড়াশুনা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু ছিলেন রাজনীতিবিদ ও আমার পিতা ছিলেন ক্রীড়াবিদ।

বঙ্গবন্ধু কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন ইসলামিয়া কলেজ থেকে বি.এ. পাশ করেন, আমার পিতা সেখান থেকে ইতিহাসে অনার্সসহ দ্বিতীয় শ্রেণীতে বি.এ. পাশ করেছিলেন এবং তিনি ছিলেন ইসলামিয়া কলেজের “স্পোর্টস ব্লউ।” সে যুগে বঙ্গবন্ধু কলিকাতা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের একনিষ্ঠ সমর্থক ছিলেন এবং মোহামেডানের জার্সি পড়া ছবি তুলেছিলেন, আমার পিতা ছিলেন কলিকাতা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের খ্যাতিমান ফুটবলার। আমার পিতা বঙ্গবন্ধু সরকারের ১৯৭২ সালের মিউনিখ অলিম্পিকে বাংলাদেশের প্রথম অবজারভার নির্বাচিত হয়েছিলেন।

পিতা রাজনীতি করতেন না, আমার মরহুম মাতা ফিরোজা ইলিয়াস স্বাধীনতা উত্তর আওয়ামী লীগ করতেন এবং বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর ময়মনসিংহের এমপি রফিক ভূঁইয়ার সহযোগী ছিলেন। সে নিরিখে রফিক ভূঁইয়াকে দেখেছিলাম আমাদের বাকৃবির বাসায়।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ঢাকায় প্রথম মহিলা কর্মানুষ্ঠানে আম্মা ময়মনসিংহের ডেলিগেট হয়ে ঢাকায় গিয়েছিলেন এবং আম্মার কাছ থেকে শুনেছিলাম বঙ্গবন্ধুকে কাছ থেকে দেখার গল্প। বঙ্গবন্ধুর ওফাতের পর আম্মাকে কখনও দেখেনি একমাত্র মহিলাদের কল্যাণ ছাড়া কোন রাজনৈতিক দলে অন্তর্ভুক্ত হতে, এমন কি ময়মনসিংহের মহিলা সমিতির প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরও।

সম্ভবতঃ আমি বাংলাদেশের একমাত্র ডেফ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে অনার্সসহ এম.এ., আমেরিকায় ডাটা প্রসেসিংয়ের গ্রাজুয়েট , ভারতের খেলাধূলায় সম্মানসূচক পিএইচডি, জাতীয় ক্রিকেট, জাতীয় এথলেটিক্স ও জাতীয় যুব ফুটবলে তদানীন্তন ময়মনসিংহ জেলা দলের প্রতিনিধিত্বকারী।

আমেরিকায় আমার পিতা ও আমাকে সম্মানিত করেছে। আমেরিকার মেয়র জ্যাক রবার্ট আমেরিকায় আমার পিতাকে নর্থ ক্যারোলিনার কনকর্ড সিটির চাবি দিয়ে সম্মানিত করেছিলেন, তেমনি ওয়ালমার্ট আমাকে একটি সুপার ওয়ালমার্ট উদ্বোধনের রিবন কাটিংয়ের সম্মান দিয়েছে।

মরহুম বাবা সাহেবের মত আমিও দেশ-বিদেশের পত্র-পত্রিকায় বাংলা ও ইংরেজিতে বহু লেখা প্ৰকাশ করেছি। আমেরিকায় কলেজের ছাত্র জীবনের কলেজ পত্রিকার এডিটোরিয়াল বোর্ডের একজন স্টাফ মেম্বারও ছিলাম। অরোরা আমার স্থানীয় ডেইলি বেকোন নিউজ আমাকে একবার গেস্ট কলমনিস্টে সম্মানিত করেছে।

আমি রাজনীতি করি না। আমি ছিলাম বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রত্যক্ষদর্শী। সে নিরিখে বঙ্গবন্ধু ছিলেন জাতির জনক ও স্বাধীনতার ঘোষক।

তারিখঃ ৩০/০৬/২০