কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সরকারের সক্ষমতা ও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সরকারের সক্ষমতা ও উল্লেখযোগ্য ভূমিকা

অধ্যাপক ডাঃ এম এ আজিজ
মহাসচিব, স্বাচিপ

১. বাংলাদেশে কোভিড ১৯ এ মৃত্যুহার ১.২৭% যা বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক কম
২. ২০২০ সালের ৩ শে জানুয়ারি WHO করোনাকে গ্লোবাল পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি হিসেবে ঘোষনা দেয়ার পর কোভিড-১৯ প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করার ফলে ২.৫ মাস পর ৮ই মার্চ বিশ্বে ৬৭তম দেশ হিসেবে বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী সনাক্ত হয়।
৩. সংক্রমনের ৪ মাস পরেও উন্নত বিশ্বের স্বাস্থ্যব্যবস্থাপনা যখন মহামারী মোকাবেলায় বিপর্যস্ত, আমরা এখনও শক্ত হাতে করোনা মোকাবেলা করে যাচ্ছি।
৪. ১০ হাজার কোটি টাকা থোক বরাদ্দ, স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৮৫০ কোটি টাকা এবং বাজেটে স্বাস্থ্যখাতের জন্য ২৯ হাজার ২৪৭ কোটি টাকা
৫. প্রায় সোয়া লাখ কোটি টাকার প্রণোদনা, ৫০ লক্ষ রেশন কার্ডের বিপরীতে খাদ্য সহায়তা, ৫.৫ কোটি মানুষকে ত্রান সহায়তা ও ৫০ লক্ষ মানুষকে আর্থিক সহায়তা সহ ৩১ দফা নির্দেশনা দেন।
৬. সরকারি হাসপাতালে সম্পূর্ন বিনামূল্যে সকল কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা
৭. বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা’র নির্দেশনা মেনে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সহায়তায় ‘চিকিৎসা গাইডলাইন’ প্রস্তুত করে সকল কোভিড-১৯ রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছে, যার প্রশংসা চিনের বিশেষজ্ঞ দল করে গেছে।
৮. স¦ল্প সময়ে ২ হাজার চিকিৎসক, ৫.৫ হাজার নার্স নিয়োগ দিয়েছে, ৩.৫ হাজার টেকনোলজিস্ট এর নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন এবং ২ হাজার চিকিৎসক ও ৪ হাজার নার্স নিয়োগের অপেক্ষায় আছে।
৯. কোভিড-১৯ চিকিৎসার সম্মুখযোদ্ধা চিকিৎসক সহ স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশেষ ট্রেনিং-এর ব্যবস্থা
১০. সারাদেশে ক্রমান্বয়ে ৭৭ টি RT-PCR ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে
১১. আইসোলেশন সেন্টার তৈরী সহ মুমুর্ষূ রোগীদের চিকিৎসার জন্য, সেন্ট্রাল অক্সিজেন, হাই-ফ্লো ন্যাসাল ক্যানুলা, আইসিইউ বেড ও কৃত্রিম শ্বাসযন্ত্র সহ ডেডিকেটেড হাসপাতাল এর সংখ্যা বৃদ্ধি করেছে।
১২. মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বৈশ্বিক সম্মেলনে পাঁচ দফা প্রস্তাব ঘোষণা করেন এবং ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের জন্য গ্লোবাল সিটিজেন তহবিলে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার প্রদান করেন।
১৩. বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীগণ কৃষকদের ধান কাটতে সহায়তা প্রদান করে ও ৩০০ কোটি টাকার কৃষি উপকরণ বিনামূল্যে সরবরাহ করে ফলে দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়েছে
১৪. সুপার সাইক্লোন আম্ফান সফলতার সাথে মোকাবেলা করায় ব্রিটিশ ডেইলি গার্ডিয়ান এ (৩রা জুন) মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রসংশিত হন।
১৫. এছাড়াও বিশ্বের জনপ্রিয় ম্যাগাজিন ফোর্বস কোভিড মোকাবেলায় জননেত্রীর নেতৃত্বের প্রশংসা করেছে ।
১৬. ত্রাণ বিতরন, চিকিৎসা ও লাশ দাফন সহ নানাবিধ কর্মসূচীতে বাংলাদেশ আওয়ামি লীগ এর নেতৃত্বে নেতা-কর্মীদের সক্রীয় অংশগ্রহণের ফলে অনেক নেতা কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান।

বৈশ্বিক এই মহামারীতে অসচেতন ও ঘন জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যব্যবস্থা নিশ্চিত করা এক বিষ্ময়কর ব্যাপার যা সরকারের সহযোগীতায় আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরলস পরিশ্রম ও জীবনের বিনিময়ে মোকাবেলা করে যাচ্ছে। আমরা সকল চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাই ।

অধ্যাপক ডাঃ এম এ আজিজ
মহাসচিব, স্বাচিপ