মাদারীপুরে নদী ভাঙ্গন ও বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ।

বিডিনিউজ এক্সপ্রেসঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ মাদারীপুর জেলার সকল উপজেলায় নদী ভাঙ্গন ও বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে উপহার সামগ্রী পৌছে দেওয়ার কাজ অব্যাহত রেখেছে। ইতোমধ্যে মাদারীপুরের কালকিনি, রাজৈর ও শিবচর উপজেলায় এবং মাদারীপুর পৌর এলাকায় নদী ভাঙ্গন ও বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার সামগ্রী পৌছে দিয়েছে। কেন্দ্রীয় ত্রাণ সমন্বয় কমিটি জেলার প্রান্তিক বন্যা কবলিত দেড় হাজার পরিবারের মধ্যে ত্রাণ ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছে। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, তেল, আলু, পেয়াজ, সাবান, মাস্ক ও পানি বিশুদ্ধকরণ ঔষুধ।

বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় মাদারীপুর পৌরসভা অডিটোরিয়ামে ত্রাণ বিতরণ ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং প্রধান আলোচক হিসেবে যুক্ত ছিলেন কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য।

আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ‘জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশনায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পরিচালিত হয়। এই নির্দেশনায় আমরা এগিয়ে যাব। আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রত্যেক নেতা-কর্মী করোনা ভাইরাসের সময় মানুষের পাশে থেকেছি এবং দেশের এই ক্রান্তিলগ্নেও মানুষের পাশে আছি। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে।’

লেখক ভট্টাচার্য্য ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ত্রাণ কমিটিকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘আপনারা মাদারীপুরের প্রত্যন্ত অঞ্চলে দেশরত্ন শেখ হাসিনার উপহার নিয়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা দিয়েছেন, এই মুজিব বর্ষের মধ্যে বাংলাদেশের একটি নাগরিক না খেয়ে থাকবে না, একটি নাগরিক গৃহহীন থাকবে না।’

উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সহ-সভাপতি ইমরুল হাসান নিশু এবং সঞ্চালনা করেন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো.সাকিল ভুঁইয়া। ইমরুল হাসান নিশু বলেন, ‘বৈশ্বিক করোনা ভাইরাস মহামারির মধ্যে সাম্প্রতিক বন্যা ও নদী ভাঙ্গন মানুষের দুর্ভোগ-দুর্দশা বহুগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার এই সংকট সাহসিকতার সাথে মোকাবেলা করে চলছে। এই বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মন্দার মধ্যেও বঙ্গবন্ধু কন্যার দৃঢ় নেতৃত্বে বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় দুই হাজার ডলার ছাড়িয়েছে। তিনি আরও বলেন, ‘বিখ্যাত সাময়িকী ফোর্বস ও বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংস্থা ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম বর্তমান সংকট মোকাবেলায় শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের ভুয়সী প্রশংসা করেছে যা বিশ্ব নেতৃত্বের জন্য রোল মডেল।’

এছাড়া অন্যান্য কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক সম্পাদক খালিদ হাসান রবিন, উপ-মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সোলায়মান খান সুজন, সদস্য পরশ রাফসানজানী। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন মাদারীপুর জেলা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হোসেন অনিক ও সাধারণ সম্পাদক বায়জিদ হাওলাদারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

তারিখঃ ১৩/০৮/২০