মানসম্মত উচ্চতর কৃষি শিক্ষা ব্যবস্থার নিশ্চয়তা এবং শেখ হাসিনার আস্থা রক্ষায় কাজ করবো: মেয়র টিটু

এশিয়ার বৃহত্তম কৃষিশিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশে কৃষি শিক্ষার সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়।

উচ্চতর কৃষি শিক্ষা ও গবেষণার অন্যতম প্রধান প্রতিষ্ঠান। স্থলজ ও জলজ উৎপাদনের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্কযুক্ত কৃষিবিজ্ঞানের সকল শাখাই এর কার্যক্রমভুক্ত।

১৯৬১-১৯৬২ শিক্ষাবর্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়। বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে এটি স্থাপিত হয়। ১৯৬১ সনের ১৮ আগস্ট জাতীয় শিক্ষা কমিশন, খাদ্য ও কৃষি কমিশন এবং সংশি­ষ্ট বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতেই বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের গোড়াপত্তন সম্ভব হয়।
ময়মনসিংহ শহর থেকে ৪ (চার) কিলোমিটার দক্ষিণে পুরাতন ব্রহ্মপুত্রের তীরে ৪৮৫ হেক্টর জায়গা নিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান। যাত্রা শুরুকালে স্বাভাবিকভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়টির পরিধি ছিল ছোট। ভেটেরিনারি ও কৃষি -এ দু’টি অনুষদ এবং এর অর্ন্তভূক্ত বিভিন্ন বিভাগ নিয়ে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম শুরু হয়। দেশ ও জাতির বৃহত্তর স্বার্থে, সময়ের প্রয়োজনেই এর অনুষদ ও বিভাগের সংখ্যা বাড়তে থাকে। বর্তমানে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬ টি অনুষদ এবং এই ৬ টি অনুষদের অর্ন্তভূক্ত ৪১ টি বিভাগ রয়েছে।

ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য জনাব ইকরামুল হক টিটু বলেন মানসম্পন্ন উচ্চতর কৃষিশিক্ষা ব্যবস্থার নিশ্চয়তা বিধানের মাধ্যমে দেশে কৃষি উন্নয়নের গুরুদায়িত্ব বহনে সক্ষম তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক জ্ঞানসম্পন্ন দক্ষ কৃষিবিদ, প্রাণিবিজ্ঞানী, প্রযুক্তিবিদ ও কৃষি প্রকৌশলী তৈরিতে এবং দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার আস্থা রক্ষায় এই বিশ্ববিদ্যালয়ে উত্তরোত্তর সাফল্য অর্জনে শতভাগ দায়িত্বের সঙ্গে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করছি। সেই সাথে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

তারিখঃ ১৭/০৮/২০