দেশে করোনায় মৃত্যু ২০ হাজার ছাড়িয়েছে

দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যু সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়েছে। গত ২৪ জুলাই দেশে মৃত্যু ১৯ হাজারের ঘর অতিক্রম করে। ওইদিন পর্যন্ত মারা যায় ১৯ হাজার ৪৬ জন। মাত্র ৪ দিনে এই সংখ্যা ২০ হাজার ছাড়িয়েছে।
গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ২৩৭ জন। গতকাল এ যাবতকালের একদিনে সর্বোচ্চ রেকর্ড সংখ্যক ২৫৮ জন মারা গিয়েছিল। গতকালের চেয়ে আজ ২১ জন কম মারা গেছেন। আজ মৃতদের মধ্যে পুরুষ ১৪৯ জন ও নারী ৮৮ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ১৬ জনে ।
এদিকে দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্য ১২ লাখ ছাড়িয়েছে। আজ নতুন আক্রান্ত হয়েছে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ সংখ্যক ১৬ হাজার ২৩০ জন।
আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৬৫ শতাংশ। গতকাল মৃত্যুর হার ছিল ১ দশমিক ৬৬ শতাংশ। এখন পর্যন্ত যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ১৩ হাজার ৬২৭ জন, ৬৮ দশমিক ০৮ শতাংশ এবং নারী ৬ হাজার ৩৮৯ জন, ৩১ দশমিক ৯২ শতাংশ।
গত ২৪ ঘন্টায় মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী ৯ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ৩৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ৪৪ জন, ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সী ৭৮ জন, ৭১ থেকে ৮০ বছর বয়সী ৪৫ জন, ৮১ থেকে ৯০ বছর বয়সী ১৫ জন এবং ৯১ থেকে ১০০ বছর বয়সী ১ জন মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ ৭০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৬২ জন, রাজশাহী বিভাগে ২১ জন, খুলনা বিভাগে ৩৪ জন, বরিশাল বিভাগে ৯ জন, সিলেট বিভাগে ১৮ জন, রংপুর বিভাগে ১৬ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৭ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে ১৬৭ জন সরকারি হাসপাতালে, ৫৭ জন বেসরকারি হাসপাতালে এবং ১৩ জন বাসায় মারা গেছেন।
গত ২৪ ঘন্টায় ৫৩ হাজার ৮৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬ হাজার ২৩০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল ৫২ হাজার ৪৭৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৪ হাজার ৯২৫ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল। গতকালের চেয়ে আজ ১ হাজার ৩০৫ জন বেশি আক্রান্ত হয়েছেন।
বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ১২ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ২৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ শনাক্তের হার ১ দশমিক ৬৮ শতাংশ বেশি।
এদিকে ঢাকা জেলায় (মহানগরসহ) ২৪ ঘন্টায় ২১ হাজার ৬৬৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ৬ হাজার ২৬৯ জন। ঢাকায় শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৯৩ শতাংশ। গতকাল এই জেলায় ১৮ হাজার ৪৬০ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১৭২ জন যা ২২ দশমিক ৬০ শতাংশ। এই জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ৩৭ জন। গতকালও ৪১ জন মারা গিয়েছিল।
স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৭৬ লাখ ১২ হাজার ৫৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১২ লাখ ১০ হাজার ৯৮২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের ১৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৪৭০ জন। গতকাল সুস্থ হয়েছিলেন ১২ হাজার ৪৩৯ জন। গতকালের চেয়ে আজ ১ হাজার ৩১ জন বেশি সুস্থ হয়েছেন। দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১০ লাখ ৩৫ হাজার ৮৮৪ জন। আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ। গতকাল এই হার ছিল ৮৫ দশমিক ৫৮ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ সুস্থতার হার দশমিক ০৪ শতাংশ কম।
করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৫৬ হাজার ১৫৭ জনের। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ৫৫ হাজার ১৫৯ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৯৯৮টি নমুনা বেশি সংগ্রহ হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৫৩ হাজার ৮৭৭ জনের। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ৫২ হাজার ৪৭৮ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ১ হাজার ৩৯৯ টি নমুনা বেশি পরীক্ষা হয়েছে।